Hesperian Health Guides

পরিবার পরিকল্পনা: জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি ব্যবহার করা


জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি (মুখে খাবার জন্মনিরোধক)

বেশীরভাগ জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়িতেই নারীর দেহে স্বাভাবিকভাবে তৈরী হয় সে ধরনে ১ বা ২টি হরমোন থাকে। এই হরমোনগুলোকে ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিন বলা হয়।

প্রতিটি হরমোনের বিভিন্ন মাত্রা এবং অনেক রকমারী মার্কা ব্যবহার করে জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি বিক্রয় করা হয়। নীচে দেখানো প্রথম তিন ধরনের বড়িতে ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টিন উভয়ই থাকে (সমন্বিত বড়ি-এর দেখুন) এবং চতুর্থ ধরনটির মধ্যে শুধু প্রোজেস্টিন রয়েছে (ছোটবড়ি দেখুন)।

সচরাচর দেখতে পাওয়া যায় এমন একটি ইস্ট্রোজেনের নাম হলো এথিনিল এস্ত্রাডিওল। সবথেকে বেশী ব্যবহার করা মাত্রা হলো ৩৫ মাইক্রোগ্রাম। সমন্বিত বড়িতে সবথেকে বেশী ব্যবহার করা প্রোজেস্টিনের পরিমাণ হলো ০.১ মিগ্রা (মিলিগ্রাম)।

জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবহার করা নারীদের সাধারণতঃ বড়ি গ্রহণ না করার সময়ের চাইতে অল্প মাসিক রক্তক্ষরণ হয়। এটি হয়তো একটি বিষয়, বিশেষ করে যে নারীরা রক্তস্বল্পতায় ভুগছে। কিন্তু একজন নারীর যদি মাসের পর মাস মাসিক কোন রক্তক্ষরণ না হয় বা খুবই অল্প রক্তক্ষরণ হয় এবং সে এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া পছন্দ না করে, তবে সে তা পরিবর্তন করে আরও বেশী ইস্ট্রোজেনযুক্ত মার্কা ব্যবহার করতে পারে।

সকল জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়িই গর্ভধারণ রোধে সবথেকে ভাল কাজ করে যদি প্রতিদিন একই সময়ে এগুলো সেবন করা হয়। এর ফলে নিয়মিত সেবন করার বিষয়টি মনে রাখাও সহজ হয়। শুধুমাত্র-প্রোজেস্টিন বড়ি (ছোট বড়ি) প্রতিদিন একই সময়ে সেবন করা বিশেষ করে খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারণ এই বড়ি ১টি সেবন করতে ভুলে গেলেই গর্ভধারণ করার সম্ভাবনা অনেকাংশেই বেড়ে যায়।

একটি ২৮-দিনের মোড়ক থাকলে প্রতিদিন একটি করে বড়ি গ্রহণ করুন, এবং তা শেষ হবার সাথে সাথেই একটি নতুন মোড়ক শুরু করুন। একটি ২৮-দিনের মোড়কে ২১টি বড়িতে হরমোন থাকতে পারে এবং বাকি ৭টি বড়িতে কোন হরমোন থাকে না। এই অনুস্মারক বড়িগুলো (এগুলোকে মন রক্ষাকারী বড়িও বলা হয়) একজন ব্যক্তিকে প্রতিদিন বড়ি সেবন করার কথা মনে করায় সাহায্য করে। যদিও, কোন কোন ২৮-দিনের মোড়কে শুধুই হরমোনযুক্ত বড়ি থাকতে পারে। একটি ২১-দিনের মোড়কের বড়ি প্রতিদিন একটি করে নিন এবং একটি নতুন মোড়ক শুরু করার আগে সাত দিন অপেক্ষা করুন (যদিনা আপনি স্বল্পসংখ্যক মাসিক হওয়ানোর জন্য অব্যহতভাবে বড়ি ব্যবহার করতে থাকে)।

সমন্বিত বড়ি যেগুলোতে হরমোনের মাত্রা পরিবর্তীত হয়
এই বড়িগুলোতে ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টিনের মাত্রা সারা মাস ধরে পরিবর্তীত হয়। যেহেতু মাত্রা পরিবর্তীত হয়, তাই বড়িগুলোকে নিয়মতান্ত্রিকভাবে সেবন করা উচিত।
কোন কোন মার্কার নাম: গ্রেসিয়াল, লজিনন, ক্লেয়রা, সিনফেজ, ট্রিনর্ডিওল, ট্রিনভাম, ট্রিকলার, ট্রিফাসিল


সমন্বিত বড়ি যেগুলো মাত্রার পরিমাণ নির্দিষ্ট: ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টিন উভয়ই
এগুলোতে ইস্ট্রোজেন (সাধারণতঃ ৩৫ মাইক্রোগ্রাম) এবং প্রোজেস্টিন (সাধারণতঃ ০.১ মিগ্রা) থাকে। একটি ২৮-বড়ির মোড়কে ২১টি হরমোনযুক্ত বড়ি এবং ৭ অনুস্মারক বড়ি (মন রক্ষাকারী বড়ি) থাকে। ২১-বড়ির একটি মোড়কে শুধুই হরমোনযুক্ত বড়ি পাওয়া যায়। প্রতিটি হরমোনের মাত্রা ২১ বড়ির উভয় ধরনের মোড়কেই একই থাকে।
কোন কোন মার্কার নাম: এ্যালেসি, সিলেস্ট, ডায়্যন, ফেমোডিন, গাইনেরা, হারমোনেট, নরিনিল, অর্থ-নোভাম, ওভিসম্যান


নির্দিষ্ট মাত্রাযুক্ত সমন্বিত বড়ি: বেশী প্রোজেস্টিন, কম ইস্ট্রোজেন
এই বড়িগুলোতে প্রোজেস্টিন বেশী থাকে (০.১৫ মিগ্রা) এবং ইস্ট্রোজেন কম থাকে (৩০ মাইক্রোগ্রাম)। একটি ২৮-বড়ির মোড়কে ২১টি হরমোনযুক্ত বড়ি এবং ৭ অনুস্মারক বড়ি (মন রক্ষাকারী বড়ি) থাকে।

২১-বড়ির একটি মোড়কে শুধুই হরমোনযুক্ত বড়ি পাওয়া যায়। প্রতিটি হরমোনের মাত্রা ২১ বড়ির উভয় ধরনের মোড়কেই একই থাকে। এই বড়িগুলো একজন নারী যারা প্রচুর পরিমাণ মাসিক রক্তক্ষরণ হয় বা যার মাসিক শুরু হবার আগে যার স্তন খুবই বেদনাদায়ক হয় তার জন্য ভাল কাজ করতে পারে।

কোন কোন মার্কার নাম: লো-ফেমেন্টাল, লো/ওভরাল, মাইক্রোজিনন, মাইক্রোভলার, নরডেট


শুধু-প্রোজেস্টিন বড়ি (ছোট বড়ি)
এই বড়িগুলোতে শুধু প্রোজেস্টিন থাকে এবং ২৮-বড়ির মোড়কে পাওয়া যায়। এই মোড়কের সকল বড়িতে একই মাত্রার প্রোজেস্টিন থাকে।
কোন কোন মার্কার নাম: ফেমুলেন, মাইক্রোলুট, মাইক্রোনর, মাইক্রোনোভাম, নিয়োজেস্ট, মাইক্রোভাল, ওভরেট, এক্সলুটন



এই পাতাটি হালনাগাদ করা হয়েছে: ১৫ অক্টো ২০১৯