Hesperian Health Guides

আপনার যদি ক্যান্সার থাকে

আপনার ক্যান্সার হয়েছে তা জানা কম করে বললেও খুবই ভীতিকর। কিন্তু ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করা এবং ভাল অনুভব করায় সাহায্য করতে আপনি করতে পারেন এমন কিছু বিষয় আছে।

  • আপনার যদি মনে হয় আপনার ক্যান্সার আছে, তবে ক্যান্সারের বিষয়ে অভিজ্ঞতা আছে এমন ডাক্তার বা ক্লিনিক খুঁজে বের করতে চেষ্টা করুন। আপনার হয়তো নিশ্চিতভাবে জানতে ১টি পরীক্ষার বেশী লাগতে পারে।
  • আপনাকে যদি বলা হয় যে আপনার ক্যান্সার আছে, তবে আপনি ডাক্তারকে এই রোগটি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করুন। যে সমস্ত লোকদের এই ধরনের ক্যান্সার আছে তাদের ক্ষেত্রে কী ঘটে? আপনি দীর্ঘ সময় বাঁচার জন্য বা এই ক্যান্সার থেকে ভাল হয়ে ওঠার জন্য কী করতে পারেন।
  • দ্রুত চিকিৎসা গ্রহণ করুন। অনেক ক্যান্সারেই সফলভাবে চিকিৎসা করা যায় যদি প্রাথমিক পর্যায়েই তা সনাক্ত করা যায়। চিকিৎসা বিষয়ক আপনার কোন পছন্দ আছে কিনা? এই চিকিৎসাগুলোর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কী কী?
  • অন্যান্য যাদের ক্যান্সার হয়েছে তাদের সাথে কথা বলুন। তারা প্রায় সময়ই উপকারী পরামর্শ দিতে পারে এবং সহমর্মী শ্রোতা হতে পারে বিশেষভাবে যদি তাদেরও একই জাতীয় ক্যান্সার হয়ে থাকে এবং এখন তারা ভাল আছে।
  • অনবগত বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের বলা গুজব বা গল্পে কান দেবেন না।
  • পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার মাধ্যমে আপনি শক্তিশালী থাকতে পারবেন।
  • প্রাত্যহিক অনুশীলন করুন — এমনকি স্বল্প সময় হাঁটা হলেও। আয়েশ করার উপায় খুঁজুন, যেমন যোগ ব্যয়াম, ধ্যান, বা কয়েক মিনিট নিজে একটু একা থাকুন।
  • আপনাকে সাহায্য করতে পারে এমন মানুষ খুঁজুন। ক্যান্সার এবং এর চিকিৎসা ক্লান্তি, বমি বমি ভাব, এবং ব্যথার কারণ হতে পারে। ক্যান্সার প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে এবং এদিক ওদিক চলাফেরা করা বা কাজ করা কঠিন করে তুলতে পারে। একজন স্বাস্থ্যকর্মীর কাছে হয়তো প্রয়োজনীয় সম্পদ সম্পর্কে ধারণা থাকতে পারে।


যে কোন ক্যান্সারের চিকিৎসার উদ্দেশ্যে থাকতে হবে সাধারণ স্বাস্থ্য এবং কল্যাণ প্রসার করা।

আপনার ক্যান্সার হয়েছে তা জানতে পারা, চিকিৎসা গ্রহণ করা, এবং আপনি অসুস্থ্য তা গ্রহণ করা খুবই কঠিন হতে পারে। আশাহত বা দুশ্চিন্তাযুক্ত হওয়া স্বাভাবিক। অসুস্থ্য হবার মানসিক ও আবেগগত দিকগুলোর পরিচর্যা যে কোন শারীরিক বা ঔষধগত চিকিৎসার মতোই সমান গুরুত্বপূর্ণ। এই সাহায্য পাবার অনেক উপায় আছে।

কয়েকজন একত্রে খাবার খাচ্ছে।
  • প্রিয়জনদের সাথে সময় কাটান।
  • আপনি আস্থা রাখেন এমন কোন একজনের সাথে আপনার অনুভূতি এবং ভীতি সম্পর্কে কথা বলুন।
  • প্রার্থণা করুন বা আপনার ধর্মীয় দলের সাথে বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করুন।
  • আপনি পছন্দ করেন এমন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করুন।
  • সঙ্গীত, ধ্যান, এবং মৃদ্যু শরীর চর্চার মাধ্যমে আয়েশ করুন।


হতাশা বা দুশ্চিন্তার অনুভূতির বিষয়ে কিভাবে সাহায্য করা যায় সে সম্পর্কে আরও জানতে মানসিক স্বাস্থ্য (সংকলিত হচ্ছে) দেখুন।



এই পাতাটি হালনাগাদ করা হয়েছে: ১৩ মে ২০২১