Hesperian Health Guides

শি শুদে র মধ্যে ক্যান্সার

শিশুবেলায় ক্যান্সার হওয়া সাধারণতঃ দেখা যায় না। শিশুদের মধ্যে সবথেকে বেশী দেখতে পাওয়া ক্যান্সারের মধ্যে আছে লিউকেমিয় (রক্তের ক্যান্সার) বা মস্তিষ্কের টিউমার। সামগ্রীকভাবে শিশুবেলার ক্যান্সার প্রাপ্তবয়স্কদের ক্যান্সারের থেকে বেশী সহজভাবে চিকিৎসা ও নিরাময় করা যায়।

শিশুদের হওয়া বেশীরভাগ ক্যান্সারই সহজেই সনাক্ত করা যায় না। সাধারণতঃ চিহ্নগুলো অস্পষ্ট যেমন ওজন হ্রাস হওয়া অব্যহত, সকালে মাথা ব্যথা আর বমি, ফুলে যাওয়া বা ব্যথা দীর্ঘস্থায়ী হয়, জ্বর দীর্ঘস্থায়ী হয়, অস্বাভাবিক কালশিটে দাগ বা রক্তক্ষরণ। এর সবগুলোই অন্যান্য সমস্যার চিহ্ন হতে পারে — কোন কোনটি গুরুতর, কোন কোনটি নয়। শিশুর যদি কোন দীর্ঘস্থায়ী স্বাস্থ্য সমস্যা থেকে থাকে তবে তার কোন একজন স্বাস্থ্যকর্মীর সাহায্যে ডাক্তারী পরীক্ষা করা উচিত।

ফুলে যাওয়া গাল নিয়ে একটি বালক।

বারকিটের লীম্ফোমা

বিশেষকরে আফ্রিকার বিভিন্ন জায়গায় সচরাচর দেখা যাওয়া শিশুবেলার ক্যান্সার হলো বারকিটের লীম্ফোমা। এটি মুখে উপরের বা নীচের চোয়ালে একটি গোটা আকারে শুরু হয়। মাম্পস মতো বা এইচআইভি আক্রান্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে সাধারণতঃ যেমন গন্থিগুলো ফুলে যায় এটির ফলে তা না হয়ে শুধুমাত্র গালের একপাশে ফুলে যায় এবং তা ফোলে খুব দ্রুত। এটি এক দিনের মধ্যে আকারে দ্বিগুণ হয়ে যেতে পারে। এটি ব্যথাযুক্ত নয় তবে প্রাথমিক পর্যায়ে এটি অস্বস্তির কারণ হতে পারে। ফুলে যাওয়া অংশের নিকটের দাঁতগুলো সাধারণতঃ স্থানচ্যুত হয় বা নড়বড়ে হয় যায়। এটিকে হয়তো দাঁতের ফোড়া মনে করে ভুল হতে পারে।

বারকিটের লীম্ফোমা কেমোথেরাপী দ্বারা চিকিৎসা করা হয়। চিকিৎসা যদি প্রাথমিক পর্যায়েই শুরু হয় তবে এটি সাধারণতঃ খুবই সফল হয়।



এই পাতাটি হালনাগাদ করা হয়েছে: ২৩ সেপ্টে ২০১৯