Hesperian Health Guides

শ্রোণীর প্রদাহজনিত রোগ (পিআইডি)

একজন নারী তার পেট চেপে ধরে আছে

শ্রোণীর প্রদাহজনিত রোগ বা পিআইডি হলো একজন নারীর তলপেটের প্রজননতন্ত্রের যেকোন একটি অংশের সংক্রমণের নাম। এটিকে প্রায়শই 'শ্রোণীর সংক্রমণ' বলা হয়।

বিশেষ করে গনোরিয়া বা ক্ল্যামিডিয়ার মতো কোন এসটিআই আপনার ছিল কিন্তু তা থেকে আপনি সম্পূর্ণ নিরাময় পাননি এমন অবস্থা থেকে শোণীর সংক্রমণ শুরু হতে পারে। কিন্তু সকল পিআইডিই কোন একটি এসটিআই থেকে হয় না। পিআইডির অন্যান্য কারণগুলোর মধ্যে আছে জন্মের পরে সংক্রমণ, গর্ভস্রাব, বা কদাচিৎ, যেহেতু প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধকরণ পদ্ধতি পালন না করেই একটি আইইউডি (ইন্ট্রা-ইউটেরিন ডিভাইস) জরায়ুর মধ্যে স্থাপন করা হয়েছে।

যে সমস্ত জীবাণু শ্রোণীর সংক্রমণ সৃষ্টি করে সেগুলো যোনীপথ থেকে জরায়ু হয়ে গর্ভাশয়, গর্ভনালী, এবং ডিম্বাশয়ের দিকে যায়। সময়মতো যদি সংক্রমণের চিকিৎসা করা না হয় তবে এটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা, বন্ধ্যাত্য, সঙ্কটজনক অসুস্থ্যতা, বা মৃত্যু পর্যন্ত ঘটাতে পারে।

চিহ্ন (আপনার হয়তো এগুলোর একটি বা একাধিক থাকতে পারে)
  • তল পেটে (শ্রোণী) ব্যথা – ব্যথা মৃদু বা গুরুতর হতে পারে
  • যৌনকর্মের সময় ব্যথা বা রক্তক্ষরণ
  • তলপেট চাপ দিলে তা খুব নরম অনুভূত হয়
  • জ্বর
  • খুবই অসুস্থ্য এবং দুর্বল অনুভূত হয়
  • যোনী থেকে অস্বাভাবিক রক্তক্ষরণ বা দুর্গন্ধময় স্রাব
চিকিৎসা

আপনি যদি উচ্চ তাপমাত্রার জ্বর বা বমি নিয়ে খুবই অসুস্থ্য থাকেন তবে, বা আপনি যদি গর্ভবতী হোন বা সম্প্রতি আপনার গর্ভপাত হয় বা জন্ম দান করেন তবে ততক্ষণাৎ একটি স্বাস্থ্য ক্লিনিক বা হাসপাতালে যান। আপনার শিরায় (আইভি) ঔষধ দিতে হবে।

লক্ষণগুলো যদি কেবল শুরু হয় এবং তেমন গুরুতর না হয় তবে তার চিকিৎসার জন্য মুখে খাওয়ার ঔষধ নিন। এই সংক্রমণ সাধারণতঃ কয়েকটি জীবাণুর মিলিত আক্রমণের ফলে হয়ে থাকে তাই কমপক্ষে ২ ধরনের ঔষধ প্রয়োজন হবে। শ্রোণীর সংক্রমণের (পিআইডি) চিকিৎসায় ঔষধের সংমিশ্রণ দেখুন। ততক্ষণাৎ চিকিৎসা শুরু করুন। ২ দিন পর আপনি যদি ভাল অনুভব না করেন তবে চিকিৎসা সাহায্য গ্রহণ করুন।

আপনার যদি পিআইডি থাকে তবে আপনার সঙ্গী বা সঙ্গীদের এই সংক্রমণের জন্য পরীক্ষা ও চিকিৎসা করতে হবে।



এই পাতাটি হালনাগাদ করা হয়েছে: ১১ আগস্ট ২০২০